নাবিক পথ হারায়নি

জাহিদুল ইসলাম পলাশ
.
গগন বিদীর্ণ তড়িৎ ফোয়ারায়,
ঝুমঘন অন্ধকারে ক্ষণিক আশা,
প্রদীপ নিভু নিভু ক্ষীণ আলো,
দূর করতে অক্ষম কুটিল তমসা।
তীব্র ঝড়ে দাঁড় কাঁপে বেশ,
বারিবাণে ধ্বংসের দ্বারদেশ।
পর্বতসম ঢেউয়ে বিচলিত হয়নি ;
তব নাবিক পথ হারায়নি।
.
যাত্রীরা কেউ বীরদর্পে,
মশাল তুলে নেয় হাতে,
কেউ ভীষণ ত্রস্ত,
কন্ঠ মুখরিত জপ,
কেউ মোহ তন্দ্রায়,
মদ্যপানে শুধায়,
ঝড় তো আসে নি;
তব নাবিক পথ হারায়নি।
.
নাবিক চিত্ত ব্যাকুল, ভাবে বিলকুল,
যাত্রী যেন না হয় বিপদসংকুল।
দাঁড়টানে কায়মনে, শুধায় যাত্রীপানে,
বাঁচার পণে, যাসনা হয়ে আনমনে।
ভরসা ভরা মন, সদা রয় আগুয়ান,
পর্বতসম ঢেউ হবে ক্ষণিকপর ম্লান,
খোদা চাইলে করবো জয়োগান।
উত্তাল ঢেউ এখনো থামেনি;
তব নাবিক পথ হারায়নি।
.
নক্ষত্ররাজি যবে দেখা দিবে গগনে,
যাত্রীরা বাঁচারস্বাদ পাবে আপন মনে।
ঝড়ের উত্তাল ঢেউ, মনে রাখবে কেউকেউ,
নিঃসঙ্গ মুহূর্তে, মশাল জ্বেলে হাতে,
সুগম স্রষ্টা  যে উপঢৌকন বরাতে,
হেসে শুধাবে, বলেছিলাম ভরসা রাখতে,
পর্বতসম ঢেউ চিরদিনের হয়নি;
তব নাবিক পথ হারায়নি।
Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *