জওহরলাল নেহরু ’র দৃষ্টিতে বাঙালি হিন্দু জমিদার

জমিদাররা ছিলো রক্তচোষা

আযাদ ভারতের প্রথম প্রধান প্রধানমন্ত্রী পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু ১৯৩২ সালের ৭ই ডিসেম্বর লিখেন:

‘বৃটিশদের হাতে ভারতের শিল্পগুলো ধ্বংস হয়ে যাবার ফলে তাতিরা একেবারে নি:স্ব হয়ে গিয়েছিল; এদের প্রায় সকলেই মুসলমান।ভারতের অন্যান্য সমস্ত প্রদেশের চেয়ে বাঙলাদেশেই মুসলমানদের সংখ্যা বেশি। এরা ছিল গরিব প্রজা বা অতি ক্ষুদ্র ভূস্বামী। জমিদার সাধারণত হত হিন্দু; গ্রামের বানিয়াও তাই। এই বানিয়াই হচ্ছে টাকা ধার দেবার মহাজন আর গ্রামের মুদি। কাজেই এই জমিদার এবং বানিয়া প্রজার ঘাড়ে চেপে বসে তার রক্ত শুষে নেবার সুযোগ পেত। সুযোগের যথাসাধ্য সদ্ব্যবহারও করে নিতে ছাড়ত না। এই কথাটা মনে রাখা দরকার।’
[জওহলাল নেহরু: বিশ্ব-ইতিহাস প্রসঙ্গ (গ্লিম্পসেস অব ওয়ার্ল্ড হিস্টরি এর তরযমা), আনন্দ পাবলিশার্স, ৪৫ বেনিয়াটোলা লেন, কলকাতা ০০৯, নবম মুদ্রণ, জুন ২০১৬, পৃ ৪০৭]
কবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন এই সব জমিদারদের সর্দার!

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published.