অধঃপতিত গরু-খোর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীকে ফাঁসিতে লটকানো হোক

 

১৯৪৭ সালে ভারত বিভক্তির পরেও মি. হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী থেকে গেলেন কলকাতায়, হয়তো এ ক্ষীণ আশা নিয়ে যে ভারতের গান্ধী-টুপি পরিহিত রাজনীতিকগণকে তিনি তাঁর সার্বভৌম বাংলার স্বপ্নটাকে উপলব্ধি করাতে সক্ষম হবেন। আর হয়তো তাঁরা সার্বভৌম বাংলার স্বপ্নকে বাস্তবায়নের কোশেশ চালিয়ে যাবেন; কিন্তু চরম আঘাত পেলেন তিনি সেদিন যেদিন কলকাতায় মি. গান্ধীর প্রার্থনা-সভায় যোগদান করলেন তিনি।

hosen shahid sohrawardi এর ছবির ফলাফল

হিন্দু জনতা তাঁর চারপাশ থেকে গুঞ্জন তুলে বলছিল, ‘‘মুসলমান শুয়র, ‘খুনী ও চোর’। এমন এক চিৎকার তুলেছিল তারা যা শুধুমাত্র ধর্মনিরপেক্ষ ভারতেই শোনা যেতে পারে: ‘এই অধ:পতিত গরুÑখোরকে ফাঁসিতে লটকানো হোক’। এই পরিস্থিতিতে প্রশংসনীয় শান্তভাবে আগাগোড়া বসে থাকলেন মি. সোহরাওয়ার্দী।’’ [The Last Days of the British Raj by Leonard Mosley, Weidenfeld & Nicolson, London 1961]

এভাবে সে-সন্ধ্যার কুয়াশায় বিলীন হয়ে গেল জনাব হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সার্বভৌম বাংলার স্বপ্ন!

সূত্র- ভুলে যাওয়া ইতিহাস-ব্যারিস্টার এস. এ. সিদ্দীকি, রফিক মঞ্জিল, স্টেশন রোড, চট্টগ্রাম, প্রথম সংস্করণ, জুলাই ১৯৭৫, পৃষ্ঠা ১৫২

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published.