কবিতা: তোমাকেই

হুমায়রা সুরভি

তোমাকে নিয়েই অবিরাম স্বপ্নের আকাশে ঘুড়ি ওড়াই-
তোমাকে দেখে দেখে অবিরাম ক্লান্ত হতে চাই
কিন্তু যতই দেখি দৃষ্টি যে ঘোলা হয়না
ইচ্ছে করে তোমার ভিতর বাহির এক্সরে প্লেটে এনে দেখি
তোমাকে অর্জুন ভাবতে বেশ লাগে
আমাকে সুভদ্রার মতো রথে তুলে নাও।
ভালোবাসার খেলা নয়-
এসো প্রেমের সবুজ বাগানে
আমরা সুখের গুবাক তরু হই।
ভালোবাসার যৌথ হাতে রুয়ে দিই সূর্যলতার চারা।

তোমাকেই বলছি হে অর্জুন প্রতিম লক্ষীছায়া,
আমি তো বনস্পতি নই, মাটির মানবী
জম্মেই যারা ফলবান বৃক্ষের বীজ বোনে কমলা রঙ কল্পনায়
আমার পাশেও কানামাছি খেলে রিরংসার টলটলে জলে
তবু অন্য কারো নয়;

একমাত্র তোমার উত্তাপেই
স্পর্শহীন বরফ গলাতে চাই
আছে থাকুক, তোমার ঘরে লক্ষী দ্রৌপদী বউ-
আভিজাত্যের গৌরবে সংসারী চাবী তারই আঁচলে থাকবে
কিছু , এসে যায়না আমার তাতে
আমি ভালোবাসার সমস্ত বর্ণমালা
তোমার জীবন পাতায় গেথেঁ দেবো
পারবে না কি তুমি
আমার বুকে তুলে দিতে কোন অভিমন্যু ফুল?

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *