কবিতা

নয়ন আহমেদ
দূরত্ব
.
দূরত্ব মানছে না দুটো প্রেমনিষ্ঠ শালিক ।
দূরত্ব মানছে না মাথা উঁচু করা নেপিয়ার ঘাস ।
দূরত্ব মানছে না বাতাস ।
দূরত্ব মানছে না বহমান নদী , ব্লেডের মতো ধারালো স্রোত ।
যেন গোলাপের পাঁপড়ির মতো লেগে আছে পরস্পর ।
যেন তারা সৎ প্রতিবেশীর মতোন দয়ালু ।
যেন তারা সোলেমান নবির মতোন বিবেচক ।
যেন তারা জন্ম দিচ্ছেন মানবিক ভাষাবোধ ।
যেন তারা গড়বে কোনো লোকালয় ।
যেখানে মানুষ আজও পা ফেলেনি ।
অথচ এর জন্মকথা নিহিত ছিলো গোলাপের শব্দার্থে ।
পাখির বাসাবুননের রূপকল্পে ।
মানুষ । আহা মানুষ !
এখনো তার বানানো হলো না ঘরবাড়ি ।
এখনো তার শেখা হলো না প্রেম ।
কোনো প্রত্যয় ।
.
দূরত্ব মানছে না মাথার চুল ।
দূরত্ব মানছে না গাছের পাতা ।
দূরত্ব মানছে না কাঁঠালের কোষ ।
দূরত্ব মানছে না একনিষ্ঠ হৃদয় ।
তাহলে হিংসার পতন হচ্ছে ।
তাহলে কলিঙ্গ যুদ্ধের রক্ত থেকে পূথিবী জেগে উঠছে ।
তাহলে রাজা অশোকের অনুশোচনা থেকে প্রেম জন্ম হচ্ছে ।
তাহলে জিশুর প্রণয় বিস্তারিত হচ্ছে ।
তাহলে গৌতমের দুঃখ মুছে যাচ্ছে ।
তাহলে মুহম্মদের ভালোবাসা ধানখেতের মতো দৃষ্টিগ্রাহ্য হচ্ছে ।
.
বলো মানুষ , অনিবার্য রূপকথার জন্ম হচ্ছে ।

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published.