কোটি ডলারের বিচ্ছেদ

আহমেদ বায়েজীদ

২৭ বছরের সংসার জীবন শেষ হয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ধনকুবের ও কম্পিউটার জায়ান্ট মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের। স্ত্রী মেলিন্ডা গেটসের সাথে তিনি বিচ্ছেদের আবেদন করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন অঙ্গরাষ্ট্রের একটি একটি আদালতে। গত ৩ মে সিয়াটলে কিং কাউন্টি আদালতে বিবাহ-বিচ্ছেদের আবেদন জানান বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস। টুইটারে এক যৌথ বিবৃতিতে সবাইকে নিজেরাই জানিয়েছেন বিষয়টি।

১৯৮৭ সালে প্রথম দেখা বিল ও মেলিন্ডার। মাইক্রোসফটে ওই বছরই প্রোডাক্ট ম্যানেজার হয়ে যোগ দিয়েছিলেন মেলিন্ডা। সাত বছরের প্রেম শেষে ১৯৯৪ সালে বিয়ে। ২৭ বছর পর ভাঙলো সেই সংসার। দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তান রয়েছে এই দম্পতির।

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস মিলে দাতব্য প্রতিষ্ঠান ‘বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ গড়ে তুলেছিলেন। এ ফাউন্ডেশন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করছে। বিল গেটস বলেছেন, গেটস ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবেই চলবে। শুধু আমাদের জীবনের পরবর্তী অধ্যায় একসাথে থাকা হচ্ছেনা। বিচ্ছেদের ঘোষণায় গেটস দম্পতি লিখেছেন, ‘আমরা গত ২৭ বছরে তিনটি অসাধারণ সন্তানকে মানুষ করেছি। আর একটি সংগঠনের জন্ম দিয়েছি, যা গোটা বিশ্বের মানুষকে স্বাস্থ্যকর জীবন অতিবাহিত করতে সাহায্য করবে’।

আইন অনুযায়ী,  বিচ্ছেদের ফলে মেলিন্ডা তার স্বামীর সম্পত্তির অর্ধেক পাবেন এমন কথা আলোচনা হচ্ছে।  বিল গেটসের সম্পত্তির মোট পরিমাণ ১৪৬ বিলিয়ন বা ১৪ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ ধনী ব্যক্তি তিনি।

আর সেটি হলে ফরাসি ধনকুবের ফ্রাসোয়া মায়ার্সের পর মেলিন্ডা হয়ে যাবেন বিশ্বে দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী মহিলা। অন্য দিকে  বিল গেটস বাদ পড়বেন শীর্ষ ধনীদের তালিকা থেকে। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ওয়াশিংটন স্টেটের আইন অনুযায়ী বিচ্ছেদ হলে দম্পতির সম্পদ উভয়ের মধ্যে সমান ভাগভাগি হবে। সেটি হলে মেলিন্ডার সম্পদের পরিমান দাড়াবে ৭৩ বিলিয়ন ডলারে।

এর আগেও এমন কোটি ডলারের বিবাহ বিচ্ছেদ দেখেছে বিশ্ব। ২০১৯ সালে অ্যামাজনের প্রধান জেফ বোজেসের সাথে ছাড়াছাড়ি হয় ম্যাকেঞ্জি স্কটের। ওই বিচ্ছেদে ম্যাকেঞ্জি পেয়েছিলেন ৩৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।
মার্কিন মিডিয়া মুঘল রুপার্ট মারডকের সাথে ১৯৯৯ সালে স্কটিশ সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আনা মারিয়ার বিচ্ছেদের পর মারিয়া পেয়েছিলেন ১.৭ বিলিয়ন ডলারের সম্পত্তি ও ১১০ মিলিয়ন ডলার নগদ অর্থ।
২০১০ সালে গলফ কিংবদন্তী টাইগার উডসের সাথে বিচ্ছেদের পর তার স্ত্রী এলিন নরডেগ্রিন পান ৭১০ মিলিয়ন ডলার।
তবে সবাইকে  ছাড়িয়ে যেতে পারে বিল-মেলিন্ডার বিচ্ছেদ। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি অঙ্গরাষ্ট্রের রয়েছে আলাদা আইন। তাই প্রতিটি ক্ষেত্রেই স্থানীয় আইন প্রযোজ্য হচ্ছে। এদের মধ্যে একমাত্র মেলিন্ডাই তার স্বামীর সম্পত্তির অর্ধেক পেতে পারেন ওয়াশিংটন অঙ্গরাষ্ট্রের আইনের কারণে।
.
আহমেদ বায়েজীদ, কন্টেন্ট রাইটার
বিডি ভিউজ ও বিডি ভিউজ ইনফোটেইনমেন্ট (ইউটিউব চ্যানেল)
সদস্য, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন।
Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published.