প্রতিবাদী কণ্ঠ আহমদ ছফা

জার্মান কবি গ্যেটের বিখ্যাত কাব্য ফাউস্টের অনুবাদ এবং বার্ট্রান্ড রাসেলের সংশয়ী রচনার বাংলা রূপান্তর ছফাকে অনুবাদক হিসেবেও খ্যাতি এনে দেয়। অবশ্য গবেষক ও প্রাবন্ধিক হিসেবেই তার পরিচিতি সর্বাধিক। গবেষণার বিষয় ছিল বাঙালি মুসলমান সমাজ। এ সমাজের গঠন, বিকাশ, জাগরণ ও প্রতিষ্ঠা এবং বুদ্ধিবৃত্তির পরিচর্যা নিয়ে অন্যান্য চিন্তাবিদের মতো ছফাও গভীরভাবে ভেবেছেন। ছফার চিন্তার প্রতিফলন ঘটেছে দু’টি উল্লেখযোগ্য রচনা বুদ্ধিবৃত্তির নতুন বিন্যাস ও বাঙালি মুসলমানের মনে। এ দু’টি বিশেষ চিন্তামূলক রচনাসহ দেশ, সমাজ ও রাজনীতিবিষয়ক নিবন্ধাবলি তাকে বাংলাদেশের বুদ্ধিজীবী লেখকের মর্যাদাপূর্ণ আসন দিয়েছে।
আহমদ ছফা ছিলেন সুবিধাবাদের বিরুদ্ধে এক প্রতিবাদী কণ্ঠ। সাংগঠনিক ক্ষমতাও ছিল প্রচুর। স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশে আহমদ শরীফের নেতৃত্বে বাংলাদেশ লেখক শিবির গড়ার মুখ্য ভূমিকাও পালন করেন তিনি। বিভিন্ন সময়ে মানববাদী সংগঠন গড়ে তোলেন। আহমদ ছফা ২০০১ সালের ২৮ জুলাই মৃত্যুবরণ করেন।

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published.