বৃদ্ধাশ্রম থেকে বলছি

মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান 
.
পালছি তোকে অতি যত্নে অনেক আশা নিয়ে
সেই আশা তুই করলি পূরণ বৃদ্ধাশ্রমে দিয়ে।
.
তুই ছিলি মোর সাত রাজার ধন, হিরা-জহরত
মাথারই ছাদ ভাবতাম তোকে ভাবতাম ইমারত।
.
তোর বাপে যে করতো কাজ মাঠ-ময়দানে
মনে মনে ভাবতাম দু’জন দেখবি তুই নিদানে।
.
অনেক কষ্টে করলাম বড় হলি অফিসার
কোন খেয়ালে আমার প্রতি করলি অবিচার।
.
দোষ দেই না তোকে আমি কপালে মোর আছে
বউমা করে ঘ্যানঘ্যান শুধু তোর কানের কাছে।
.
তোর বাবা আর আমি এখন চলতে পারিনা
প্রস্রাব পায়খানার সময় হলে বলতেও পারিনা।
.
তোর ঘরটা যে নোংরা হলে, হবে তোদের কষ্ট
মূল্যবান সব আসবাবপত্র হয়ে যাবে নষ্ট।
.
শালীন বেশে খাবার খেতে, তোদের চাপাচাপি
বয়সের ভারে হাত-পা আমার, করে কাঁপা-কাঁপি।
.
তোর ঘরের’ই এক কোণেতে থাকতাম যদি পরে
খেলার ছলে নাতিটাকে দেখতাম দু’চোখ ভরে।
.
দামি দামি আসবাবপত্রে তোর ঘরটা যে ভরা
আমার ভাগ্যে জুটলো এসে সজন বিহীন ধরা।
.
আমি হয়তো মানুষ তোকে করতে পারি নাই
তকদির গুণে তাই তো পেলাম বৃদ্ধাশ্রমে ঠাঁই।
.
তুই তো থাকিস অট্টালিকায় আমি বৃদ্ধাশ্রমে
তোর’ই মঙ্গল চাই যে আমি প্রতি দমে-দমে।
.
আমার খোকা থাকুক সুখে বাড়ুক বিত্ত সম্ভ্রম
খোকার যেন শেষ আশ্রয় টা, হয় না বৃদ্ধাশ্রম।
.
কপিরাইট নিষিদ্ধ, স্বত্ব সংরক্ষিত, শেয়ার করা যাবে।
তারিখঃ ২৯/০৮/২০২০: ০৪ঃ ০৩ পিএম
বৃদ্ধাশ্রম থেকে বলছি, চট্টগ্রাম, স্বপ্নের বাংলাদেশ।
উৎসর্গঃ সকল বৃদ্ধাশ্রমবাসীকে
Next Barisal banner ads

২ comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *