লালমোহনে মুক্তবুলির লেখক আড্ডায় প্রাণের ছোঁয়া

মো. নুরুল আমিন ।।
.
লালমোহনে মুক্তবুলির প্রাণবন্ত লেখক আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর বুধবার সন্ধ্যায় লালমোহন প্রেসক্লাবে এ আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়।
.
লালমোহন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, মুক্তবুলির প্রথম সেরা লেখক ও পরবর্তীতে আবারও সেরাদের সেরা লেখক যুগান্তর প্রতিনিধি সাংবাদিক মো. জসিম জনির সভাপতিত্বে সাহিত্য বিষয়ক ম্যাগাজিন মুক্তবুলির প্রকাশক ও সম্পাদক আযাদ আলাউদ্দীন প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, লিখতে হলে পড়তে হবে। এজন্য মুক্তবুলির শ্লোগান ‘পাঠক যারা লেখক তারা’। লেখকদের মৌলিক লেখার জন্য সম্মানীর ব্যবস্থা থাকা একান্ত প্রয়োজন। সেজন্য পদক্ষেপ নিয়েছি। মুক্তবুলি প্রিন্ট ভার্সন ও অনলাইন ভার্সন থেকে যে আয় হবে তা আমি লেখক ও কবি সাহিত্যিকদের সম্মানিত করার জন্য ব্যয় করবো।
.
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মুক্তবুলির সেরা লেখক ও বরিশাল মেট্রোপলিটন কলেজের পরিচালক কবি ফিরোজ মাহমুদ ও সাংবাদিক নুরুজ্জামান।
.
মুক্তবুলির মহৎ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন লালমোহন প্রেসক্লাবের সহসভাপতি মাহমুদ হাসান লিটন ও দপ্তর সম্পাদক আজিম উদ্দিন খান। বক্তব্যের ফাঁকে হৃদয়গ্রাহী আবৃত্তি করে আজিম উদ্দিন খান অনুষ্ঠানে নতুন প্রাণ সঞ্চার করেন।
.
লেখালেখি প্রসঙ্গে চমৎকার বক্তব্য উপস্থাপন করেন সাংবাদিক শাহীন আলম মাকসুদ ও জাহিদুল ইসলাম দুলাল। বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক শাহীন কুতুব, সালাম সেন্টু, মাকসুদুর রহমান পারভেজ, শংকর মজুমদার, হাসান পিন্টু, মঞ্জু রহমান প্রমুখ।
.
মনোমুগ্ধকর এ অনুষ্ঠানে মাঝামাঝি অংশে উপস্থিতি হন প্রেসক্লাবের সহসভাপতি জসিম উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব আলম, মুক্তবুলির সেরা লেখক সাংবাদিক সাব্বির আলম বাবু, সাংবাদিক আব্দুল মোতালেব ও আব্দুর রহমান নোমান।
.
সাংবাদিক, কবি ও লেখকদের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য সাহিত্যপ্রেমী ইউসুফ হোসেন। অনুষ্ঠানে আগত কবি, লেখক, সাংবাদিক ও সাহিত্যপ্রেমীদের উষ্ণ অভ্যর্থনার কাজে ব্যস্ত ছিলেন তরুণ সাংবাদিক ইব্রাহিম আকাশ।
.
সমাপনী বক্তব্যে সাংবাদিক জসিম জনি ব্যতিক্রমী চিন্তার লেখক আড্ডায় সরব উপস্থিতির জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, লালমোহন থেকে মুক্তবুলির সেরা লেখক হয়েছেন তিনজন। ভবিষ্যতে এ সংখ্যা আরও বাড়বে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। সেই সঙ্গে তিনি ভোলার কৃতিসন্তান বরেণ্য সাংবাদিক আযাদ আলাউদ্দীনকে তার সাহসী পদক্ষেপের জন্য অভিবাদন জানান।
.
অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন সাংবাদিক, কবি, কলামিস্ট ও মুক্তবুলির সেরা লেখক নুরুল আমিন। উপস্থাপনার ফাঁকে ফাঁকে তিনি মজার কথা আর ‘বনলতা সেন’ কবিতা আবৃত্তি করে নতুন চমক সৃষ্টি করে লেখক আড্ডা জমিয়ে তোলেন।
.
অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের হাতে মুক্তবুলি চিঠি সংখ্যা তুলে দেয়া হয়। লেখক নুরুল আমিনের লেখা বই ‘জীবন জেগে থাকে’ তুলে দেয়া হয় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আযাদ আলাউদ্দীনর হাতে।
.
লালমোহন প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুস সাত্তার অনুষ্ঠান শেষে এসে আবারও লেখক আড্ডা জমিয়ে তোলেন আরজু হোটেলের চায়ের কাপে। আগত অতিথিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং সাদর সম্ভাষণ জানান। তাতে মনে হলো মুক্তবুলির লেখক আড্ডা শেষ হয়ে যেনো হলো না শেষ।
Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *