সততার অনন্য নিদর্শন

মোঃ সোয়েব মেজবাহউদ্দিন ।।

ঢাকার চিড়িয়াখানা টু কেরানীগঞ্জ রুটে চলাচলকারী দিশারী পরিবহনের এক চালক ও কাউন্টার মাষ্টারের সততার নিদর্শন প্রমান করেছে আজও সৎ লোক আমাদের সমাজে আছে।

একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত মোঃ মুজিবর রহমান খান (রতন) গত ১৯ জানুয়ারী, ২০২৩ইং বৃহস্পতিবার দুপুরের গুলিস্থান এলাকা থেকে শ্যামলী আসার জন্য দিশারী পরিবহনে বাসে উঠে। বাসে উঠার কোন এক সময় তার কাঁেধ থাকা অফিসিয়াল ব্যগটি হারিয়ে যায়। অফিসিয়িাল ব্যাগে তার গুরুত্বপূর্ন কাগজপত্র ও অফিসিয়াল আইড কার্ড ছিল। বাসে অনেক লোক থাকায় তিনি অনেক খুঁজে ও সে তার ব্যগাটি খুঁজে পাননি। পরে নিরুপায় হয়ে বাস থেকে নেমে অফিসে চলে আসেন।

গতকাল ২০ জানুয়ারী, ২০২৩ ইং শুক্রবার মোঃ রফিকুজ্জামান বকুল নামে এক লোক তাকে ফোন করে জানায় যে, তার হারিয়ে যাওয়া একটি ব্যাগটি তার কাছে আছে। ২১ জানুয়ারী, ২০২৩ইং শনিবার দুপুর এর মধ্যে মিরপুর চিড়িয়াখানা রোডের দিশারী বাস কাউন্টার থেকে ব্যাগটি সংগ্রহ করতে বলেন। মোঃ মুজিবর রহমান খান (রতন) আজ শনিবার দুপুর ১১ টার সময় ঢাকার মিরপুর চিড়িয়াখানা রোডের দিশারী বাস কাউন্টারে গিয়ে দিশারী বাস কাউন্টারের কাউন্টার মাষ্টার মোঃ রফিকুজ্জামান বকুলের সাথে দেখা করলে মোঃ মুজিবর রহমান খান (রতন কে তার হারিয়ে যাওয়া অফিসিয়াল ব্যাগটি ফেরত দেয়। মোঃ মুজিবর রহমান খান (রতন) ব্যাগটি ফেরত পেয়ে বকুল সাহেবকে ধন্যবাদ জানান এবং তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

দিশারী পরিবহনের কাউন্টার মাষ্টার মোঃ রফিকুজ্জামান বকুলের সাথে আলাপ কালে তিনি জানান, ১৯ জানুয়ারী, ২০২৩ইং বৃহস্পতিবার রাতে দিশারী পরিবহনের চালক মোঃ মাসুদুর রহমান তার বাসে এই ব্যাগটি কুড়িয়ে পেয়ে তার কাছে জমা দেয়। তিনি ব্যাগ খুলে অফিসিয়াল আইড কার্ড থেকে মোবাইল নম্বর পেয়ে মোবাইলে ফোন করেন। মোঃ রফিকুজ্জামান বকুল আরও জানান, ইতিপূর্বে এক মহিলার স্বর্নের একটা চেইন পেয়েছিলেন, পরে ঐ ভদ্র মহিলা দিশারী কাউন্টারে এলে আমরা  স্বর্নের চেইনটি ফেরত দেই।

Next Barisal banner ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *